মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব

নাজিরপুর উপজেলার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ

 

রাজনীতিবিদ

০১।       ডাক্তার ক্ষিতিশ চন্দ্র মন্ডল , পিতা- সারদা প্রসন্ন মন্ডল, ১৯৩৯ সনে ১৩ অক্টোবর শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নে বাবলা গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৭০ সনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে জয় লাভ করেন এবং এম পি নির্বাচিত হন।  ১৯৭৩ সনে তিনি এম,পি নির্বাচিত হন এবং ত্রাণ ও পূনর্বাসন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

০২।        নীরোদ বিহরী নাগ, পিতা- রসিক লাল নাগ, ১৯৩২ সনের মে মাসে মালিখালী ইউনিয়নের সাচিয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৫২ সনে ভাষা আন্দোলনে সক্রিয় অংশ গ্রহণ করেন।  ১৯৫৩-১৯৫৪ সনে এবং ১৯৫৪-১৯৫৫ সনে দু‘বার ডাকসুর  নির্বাচিত ভি,পি ছিলেন।  তিনি ন্যাপ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ছিলেন। ১৯৬৪ সনে কমিউনিষ্ট পার্টির সদস্য ও ১৯৬৪ সনে তৎকালীন প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন।

 ০৩।       শুধাংশু শেখর হালদার

                প্রাক্তন সংসদ সদস্য

০৪।        বেগম মতিয়া চৌধুরী, পিতা- মহিউদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী,মাটিভাংগা ইউনিয়নের মাহামুদকান্দা গ্রামে তিনি ১৯৪২ সনের ৩০ জুন জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৬২ সনে ছাত্র ইউনিয়নের ডাকসুর জি এস হিসেবে হামিদুর রহমানের শিক্ষা কমিশনের বিরুদ্ধে তীব্র  আন্দোলন করেন। ১৯৭৯ সনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে যোগ দেন। আওয়ামীলীগ শাসনামলে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের কৃষি মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

০৫।       মোস্তফা জামাল হায়দার,১৯৪২ সনে ১০ ডিসেম্বর মাটিভাংগা ইউনিয়নের বরইবুনিয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৬৮ সন হতে ১০৭০ সন পর্যন্ত পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন।  ১৯৭৩-১৯৮৬ সন পর্যন্ত বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৮৫ সনে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে জাতীয় পার্টির মন্ত্রী সভায় যোগদান করেন। পরবর্তীতে পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে শ্রম ও জনশক্তি, পূর্ত,ভূমি,মৎস্য ও পশুপালন, স্থানীয় সরকার, পল­ী উন্নয়ন্ ও সমবায়, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ে দায়িত্ব ছিলেন। তিনি জাতীয় হুইপ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

   লেখক সাহিত্যিক  

প্রয়াতঃ কবি আবুল হাসান, পিতা- মোঃ আলতাফ হোসেন, ১৯৪৭ সনে মালিখালী ইউনিয়নে দারিয়া বাড়ী জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর প্রকৃত নাম আবুল হোসেন মিয়া, তিনি ইত্তেফাক, গণবাংলা, জনপদ প্রভৃতি পত্রিকায় চাকুরী করেছেন।  তার গল্প, কবিতা, নাটক ছাড়াও আবুল হাসান প্রবন্ধ  লিখেছেন। দুটি পত্রিকায় অনেক উপসম্পাদকীয় কলাম ও লিখেছেন। ‘রাজা যায় রাজা আসে’ ‘যে তুমি হরণ করো’ পৃথক  পালঙ্ক, কাব্যনাটক ‘ওরা কয়েকজন’ আলোচিত গ্রন্থ। তিনি ১৯৭৫ ২৬ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করেন।

             মুঃ হাবিবুর রহামান, পিতা-মৌলভী আহমদ আলী ১৯৪১সালে দীর্ঘা ইউনিয়নে লেবুজিলবুনিয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। পেশায় শিক্ষক, তিনি স্বরূপকাঠী  থেকে প্রকাশিত কালান্তর পত্রিকার সম্পাদনা করেছেন পাশাপাশি গল্প,কবিতা, ও প্রবন্ধ লিখে সময় কাটাতেন। তাঁর প্রাকশিত গল্পের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের দিলগুলি, ভালবাসা, ভুল যখন ভাঙল, আমাদের মহানবি।

             প্রয়াতঃ মনীন্দ্র নাথ বড়াল, রজনী কান্ত বড়াল ১৯৩১ সালে শাখারীকাঠী ইউনিয়নের তারাবুনিয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। পেশায় শিক্ষক। তিনি নাজিরপুর উপজেলায় আওয়ামীলীগের সভাপতি। হিন্দু,বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নাজিরপুর উপজেলার সভাপতি ছিলেন। তাঁর প্রকাশিত ‘২১এর পাদপীঠ’ অমর সৃষ্টি। ২৭ ফাল্গুন ১৪০৬ সনে মৃত্যু বরণ করেন।          

             হুমাযূন রহমান,  পিতা- মাষ্টার আব্দুর রহমান, দীর্ঘা ইউনিয়নের পাটিতা বাড়ী গ্রামে তাঁর জন্ম গ্রহণ করেন। স্কুল জীবন হতে তিনি   লেখালেখি করেন। এ যাবৎ তাঁর আটটি নাটক মঞ্চস্থ হয়। তাঁর উলে­খ যোগ্য নাটক সগর উত্তাল,রূপালী ও হাসির নাটক প্যাকেজ সমার অন্যতম। বাওয়ালী উপাখ্যান, জিয়ানী জীবন, বরিশালের লোককাহিনী, বরিশালের প্রবাদ, কুমিল­ার লোককহিনী, কিশোর নাটক হনুফা উদ্ধারপালা, তার আলোচিত গ্রন্থ।

 দেবাশীষ রায়,  পিতা- জগদীশ চন্দ্র রায়, দীর্ঘা ইউনিয়নে দীর্ঘা গ্রামে ১৯৬০ সনে জন্ম গ্রহণ করেন।  ভালবাসার নীল নদী,  কাব্য, কাননে কত ফুল, উপন্যাস ও কালের সঙ্গমে, তার অলোচিত গ্রস্থ।

জামসেদ হায়দার,  পিতা- তোফাজ্জেল হোসেন, মালিখালী ইউনিয়নে হোগলাবুনিয়া গ্রামে ১৯৪৩ সনে জন্ম গ্রহণ করেন। তসলিমা নাসরিনের ‘জরুয়ুর স্বাধীনতা’ তার অন্যতম গ্রন্থ।

শিক্ষাবিদ

 

                        ঃ         প্রয়াতঃ হাজি মোমিন উদ্দিন মিয়া, পিতা-আলহজ্ব আলিম মিয়া, তিনি নাজিরপুর থানার প্রথম মুসলমান গ্রাজুয়েট। বেঙ্গল সিভিল সার্ভিসে ১৯২২ সনে কোলকাতার রাইটর্স বিল্ডি এ সরকারী কাজে যোগদান করেন। ১৯৬৭ সালে মাটিভাংগা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।

 প্রয়াতঃ কাছেম আলী, শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নে প্রথম প্রাজুয়েট এক বিশেষ ব্যক্তিত্ব। তিনি একজন গুনি আদর্শ শিক্ষক।

 অধ্যক্ষ সন্তোষ কুমার মিস্ত্রী, পিতা- ষষ্ঠীচরণ মিস্ত্রী, ১৯৪৫ সনে শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নে জয়পুর গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি একজন শিক্ষাবিদ এবং আদর্শের প্রতীক। ১৯৭৭ সনে মাটিভাংগা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ পদে অদিষ্ঠিত আছেন।

সংগীত শি ল্পী      

সুকুমার বিশ্বাস, পিতাু মতি লাল বিশ্বাষ, শ্রীরামকাঠীতে ১৯৬৫ সনে জন্ম গ্রহণ করেন। বাংলাদেশ বেতার ও টিলিভিষনের নির্বাচিত সংগীত শিল্পী। তিনি শ্রীরামকাঠী রামকৃষ্ণ মিশনের প্রতিষ্ঠাতা। কর্মজীবনে এসিষ্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট রিলায়েন্স ইনস্যুরেন্স লিঃ ঢাকা।

চলচিত্র পরিচালক  ঃ         দিলিপ কুমার বিশ্বাস, পিতা- বিপিন বিহারী বিশ্বাষ, মালিখালী ইউনিয়নে কারখানাবাড়ী গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তিনি বিশিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক। তিনি প্রথম জীবনে চলচিত্রে অভিনয় শুরু করেন। তার অভিনীত ছবির মধ্যে মায়ার সংসার,তানসেন, অনভব উলে­খ যোগ্য। অভিনয় থেকে প্রবেশ করেন চলচ্চিত্র নির্মাণে। গড়ে তোলেন ‘গীতি কথাচিত্র’ নামে নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। তিনি অজান্তে ছবির জন্য জাতীয় চলচিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

যুদ্ধকালীন কমান্ডার                        ঃ         ০১।  প্রয়াতঃ কমান্ডার সরোয়ার হোসেন ০২। প্রয়াতঃ কমান্ডার তাজুল ইসলাম

                                                                          ০৩। কমান্ডারএ বি এম রেজাউল করিম  ০৪। কমান্ডার আঃ ছালেক মোল­া।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ

নাজিরপুর উপজেলা কমান্ডারঃ         ০১। প্রয়াতঃ কমান্ডার তাজুল ইসলাম ০২। প্রয়াতঃ আঃ রহমান সেখ

                                                             ০৩। মোঃ আঃ লতিফ সেখ  ০৪। মোঃ নূরুল ইসলাম নাসিম।

 

মাটিভাংগা ইউনিয়ন

 

মোঃ মতিউর রহমান

যুগ্ম সচিব, মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ

 

মোঃ নুরুল আলম

কমিশনার কর প্রশাসন

 

মোঃ আসাদুজ্জামান

উপ-সচিব ক্রীড়া মন্ত্রনালয়

 

মালিখালী ইউনিয়ন

 

মোঃ জিন্নাতুল হক

যুগ্ম সচিব

সদস্য পল­ী বিদ্যুৎ বোর্ড

 

নাজিরপুর সদর ইউনিয়ন

 

মোঃ জানেবুল হক (অবসরপ্রাপ্ত )

সচিব

 

মোঃ ফারুখ খান (অবঃ)

উপ-সচিব

 

মেজর আবু তালেব ফরাজী

মেজর     মিরাজ ফরাজী

লে: কমান্ডার শাসছুল আরেফিন

মেজর হাসিবুল হাওলাদার

 

সেখমাটিয়া ইউনিয়ন

 

মোঃ আশ্রাব আলী ডাকুয়া

যুগ্ম সচিব (অবঃ)

 

মোঃ লোকমান হাকিম

উপ-সচিব।

মেজর তৌহিদুল ইসলাম (অবঃ )

 

মোঃ ফায়জুর হক কবির

পি আর  ও

বানিজ্য সম্পদ  মন্ত্রণালয়

 

শ্রীরামকাঠী ইউনিয়ন

 

মনোজকান্তি বড়াল

উপ-সচিব

 

লেঃ কর্নেল জিয়াউল হক (কাঞ্চন )

 

 কর্নেল ডাঃ রনজিত মিস্ত্রী